বসন্ত উৎসবে মেতেছে বন্দর নগরী

0
.

হলুদ পাঞ্জাবি আর বাসন্তি রংয়ের শাড়ি, ঢোলের বোল, বেহালার সুর, নৃত্য, গান, আবৃত্তি আর কথামালায় বন্দর নগরী চট্টগ্রামে পালিত হয়েছে দিনব্যাপী বসন্ত উৎসব।

নগরীর সিআরবির ছায়াঘেরা শিরীষতলায় চলছে দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য বসন্ত উৎসব। চিরায়ত বাংলার ঋতুরাজ বসন্তকে বরণের এই উৎসবের আয়োজন করেছে আবৃত্তি সংগঠন প্রমা।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রামের বরেণ্য সংগীতশিল্পী, বুদ্ধিজীবি, আবৃত্তিশিল্পী, বিভিন্ন সংগঠনের অংশগ্রহণে থাকছে নানা আয়োজন।

আজ বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে বসন্ত উৎসবের উদ্বোধন করেন সাংবাদিক, সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ আবুল মোমেন।

.

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, ভারতের সহকারি হাইকমিশনার অনিন্দ ব্যানার্জি, বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের মহাব্যবস্থাপক নিতাই কুমার ভট্টাচার্য, দৈনিক আজাদীর পরিচালনা সম্পাদক ওয়াহেদ মালেক।

উদ্বোধনকালে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, ‘বসন্ত উৎসব আমাদের কৃষ্টি সংস্কৃতির অংশ। নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাঙালির কৃষ্টি, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ধরে রেখে আমরা আরো এগিয়ে যাব।’

উৎসব সাংবাদিক আবুল মোমেন বলেন, ‘প্রকৃতিতে পরিবর্তনের ছোঁয়া দেখতে পাই। ঋতুর মধ্যে বাণী আছে। বসন্তে প্রাণের স্পন্দন ধরা পড়ে। মানুষ সারা বছরের গ্লানি, দুঃখ ছাপিয়ে নতুন করে সাজিয়ে নেয় বসন্তে। চট্টগ্রামে শিমুল ও পলাশ গাছ কমে গেছে। একসময় বেশি ছিল। চট্টগ্রামে নদী, সাগর, পাহাড়, হ্রদ আছে। এটি প্রকৃতির লীলাক্ষেত্র। এ সৌন্দর্য ধরে রাখতে হবে।’

প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের সভাপতি রাশেদ হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, সিসিএলের পরিচালক শ্যামল কুমার পালিত প্রমুখ ।

.

রং বেরংয়ের বেলুন উড়িয়ে বসন্ত উৎসবের উদ্বোধনের পর শিরীষতলার মুক্ত মঞ্চে পরিবেশিত হচ্ছে নাচ, গান, আবৃত্তিসহ নানা সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। দিনব্যাপী এই বসন্ত উৎসব চলবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

সকাল ৮টায় প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের সভাপতি রাশেদ হাসানের কবিতা আবৃত্তির মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। পরে সমবেত ঢোল ও বেহালা সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। গান পরিবেশন করেন, সঞ্জয় দে, মানস পাল চৌধুরী, কবরী দাশ প্রমুখ।

প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের সভাপতি রাশেদ হাসান বলেন, ‘বসন্ত উৎসব হলো অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চেতনা। এখানে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষ সবাই অংশ নেয়। আজ অফিস আদালত খোলা তাই সকালে উপস্থিতি কম। আশা করছি দুপুর গড়াতেই মানুষ আজকের বসন্ত উৎসবে যোগ দেবে।’

এদিকে প্রমা ছাড়াও নগরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও আমবাগানে শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে বসন্ত উৎসব করছে বোধন, এমএ আজিজ জিমনেসিয়ামে একুশে বইমেলা পরিষদ, চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বসন্ত উৎসব উদযাপন করছে।

কোন মন্তব্য নেই