চবি’র এক শিক্ষককে বহিস্কার, অপর একজনকে পরীক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত

0
ব্রেকিং নিউজ
  •  

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

.

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. সুপ্তিকণা মজুমদারকে বহিষ্কার করা হয়েছে। পরীক্ষায় অবৈধ সুযোগ দেওয়ার অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় এই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

একই অভিযোগে আরেকজন শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক শিপক কৃষ্ণ দেবনাথকে ৩ বছরের জন্য সকল ধরনের পরীক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার (১২মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এম কে নূর আহমেদ ও ডেপুটি রেজিস্ট্রার শামসুল আলম স্বাক্ষরিত এক আদেশে এসব বিষয় জানানো হয়৷ চবি কর্মচারী (দক্ষতা ও শৃঙ্খলা) সংবিধির ১৫(বি) ধারা অনুসারে এ বহিষ্কারাদেশ দেওয়া হয়েছে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়। সিন্ডিকেটের ৫২০ তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আদেশে বলা হয়,তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এবং সন্তোষজনক ব্যাখ্যা না পাওয়ায় বহিঃস্কার করা হয়েছে প্রফেসর ড. সুপ্তিকণা মজুমদারকে।

অন্যদিকে নিজের দোষ স্বীকার করে ক্ষমাপ্রার্থনা ও দুঃখপ্রকাশ করায় সহকারী অধ্যাপক শিপক কৃষ্ণ দেবনাথকে তিন বছরের জন্য সকল ধরণের পরীক্ষা কার্যক্রম থেকে বিরত রাখার আদেশ দিয়ে তাকে সতর্ক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৩য় বর্ষ (সম্মান) পরীক্ষার ৩০৮ নং কোর্সের (প্রাচীন ভারতীয় সমাজ ও সংস্কৃতি) পরীক্ষার কাজে দায়িত্বে অবহেলা, অনিয়ম, দুর্নীতি এবং পরীক্ষার খাতা জালিয়াতির অভিযোগ তুলে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য বরাবর আবেদন করেন উক্ত বিভাগের তৎকালীন প্রভাষক (বর্তমানে সহকারী অধ্যাপক) লিটন মিত্র। উক্ত কমিটি তদন্ত শেষে লিটন মিত্রের আনীত অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পায়।

কোন মন্তব্য নেই