১২ বছরে ৫ হাজার নবজাতক অদলবদল করেন হাসপাতালের নার্স!

0
ব্রেকিং নিউজ
  • *প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন

                    *প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন

.

জাম্বিয়ার ইউনিভার্সিটি টিচিং হাসপাতালে নার্সের কাজ করতেন এলিজাবেথ বালওয়া মেওয়া। ওই হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগে দীর্ঘ ১২ বছর কাজ করেছেন তিনি। এই দীর্ঘ ১২ বছরে প্রায় ৫ হাজার নবজাতককে অদলবদল করে দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের কৃতকর্মের স্বীকারোক্তি দেন এই নার্স। প্রায় ৫ হাজার নবজাতককে অদল-বদল করে দেয়ার কথা স্বীকার করে তিনি লিখেছেন, কোনো স্বার্থসিদ্ধি নয়, শুধুমাত্র মজা পাওয়ার জন্য এক দশক ধরে এই অপরাধ করে গিয়েছেন তিনি।

জাম্বিয়ার ওই হাসপাতালে ১৯৮৩ থেকে ১৯৯৫ অবধি কাজ করেছেন এলিজাবেথ। বর্তমানে তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত। হয়ত বেশিদিন বাঁচবেন না। সম্প্রতি এলিজাবেথের মনে হয়েছে, কৃত অপরাধ স্বীকার না করলে ঈশ্বর তাকে ক্ষমা করবেন না। সে জন্যই তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অপরাধের কথা কবুল করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন, ‘আমি ক্যানসারে আক্রান্ত, হয়ত বেশিদিন আর বাঁচব না। তাই আমার আর কিছু লুকানোর নেই। ইউটিএইচের প্রসূতি বিভাগে ১২ বছর কাজ করেছি আমি। সে সময় প্রায় ৫ হাজার বাচ্চার অদলবদল করেছিলাম। সেই সব বাচ্চার মায়েদের থেকে আমি ক্ষমা চাইছি।’

তিনি আরও বলেছেন, ‘সেই সময় কোনও এক দৈত্য যেন তাকে দিয়ে এই কাজ করিয়ে নিয়েছে।’

তার আনন্দের জন্য অনেক সুখী দম্পতির বিচ্ছেদও হয়েছে। সে জন্যও দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি। এলিজাবেথের এই স্বীকারোক্তির পর জাম্বিয়ার জেনারেল নার্সিং কাউন্সিল বিষয়টির তদন্ত শুরু করেছে। তারা দেখছে ওই সময়কালে এই নামের কোনও নার্স কাজ করতেন কি না।

কোন মন্তব্য নেই