সাধের অন্দরমহল হোক মনের মতন

0
ব্রেকিং নিউজ
  • *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

.

ঘরের অন্দরমহলটা একদম মনের মতো সাজিয়ে নিতে খুব ভাবা হচ্ছে তাইনা? কী করা যায়, কেমন সব জিনিষ দিয়ে সাজানো যায় সাধের ঘরখানা, সবটা কেবল ছবির মতন চোখে ভাসে নিশ্চয়? নিজের ঘরটা নিজেই সাজিয়ে নেয়ার তৃপ্তি অসামান্য। অন্দরসজ্জায় কোন জিনিষ নিয়ে কেমনভাবে কাজ করতে পারেন, কেমন করে আরো খানিকটা যত্ন মিশিয়ে দেয়া যায় আপনার ঘরের সাজের আয়োজনে, তাই নিয়ে অল্প কিছু গল্প হোক তবে।

ঘর সাজাতে আয়নার ব্যবহার চলতে পারে ইচ্ছে মতন। মানতে হবে কয়েকটি সামান্য সূত্র, আর তাতে আপনার ঘর হয়ে উঠবে দারুণ এক আয়নামহল। চওড়া ফাঁকা দেয়াল বেছে নিন বড় আয়না রাখার জন্য। শোবার ঘর তো বটেই, বসার ঘরে বা খাবার ঘরের আশপাশের দেয়ালেও মাঝারি মাপের একটা আয়না ঝুলিয়ে দিয়ে ঘরে নতুন রূপ আনা যায় চট করে। আলোর উল্টো পাশে আয়না রাখলে আয়নায় প্রতিফলিত হয়ে আলোটা ঘরে আরো ভালোভাবে খেলবে। কাজে লাগাতে পারেন এই কৌশল। দেয়ালের রঙের সাথে, ঘরের আসবাবপত্র বা পর্দার রঙের সাথে মিল রেখে আয়নার নকশা, রঙ ইত্যাদি ঠিক করা লাগবে। আয়না জিনিষখানাই সুন্দর বলে তো আর যেমন তেমন কিছু একটা এনে ঘরে সাজিয়ে রাখা যায় না, তাই ঘরের আদৌ শ্রীবৃদ্ধি হচ্ছে কি না সে খেয়াল রাখা চাই। বাজারে কিনতে পাওয়া যায় চমৎকার সব নকশা করা আয়না। কাঠের নিপুণ কারুকাজের ফ্রেমে বা হালকা ধাঁচে বেতের বুননে, আয়নার এমন রূপ থেকে চোখ সরানো দায়। কয়েকটি নিয়ে আসুন, ঘরের এদিক-সেদিক জায়গা করে দিন তাদের। বড়সড় একটা বদল চলে আসবে কিন্তু আপনার ঘরের অন্দরসজ্জায়।

আলোর উৎস হল ঘর সাজানোর আরেক উপকরণ। বলছি ল্যাম্পের কথা। টেবিলে রাখা রঙিন শেডের একটা ল্যাম্প বা ঝোলানো একটা ঝাড়বাতি, ঘরে নতুন রূপ এনে দেবে সহজেই। বসার ঘরে সোফার পাশে মেঝেতে দাঁড়িয়ে থাকা ল্যাম্পশেডটা হোক অনেক বেশি সুন্দর। রাতের আড্ডায় মৃদু আলো দেয়ার পাশাপাশি দিনভর কিন্তু ঘরের শোভা বাড়িয়ে দেবে সে। ছোট ছোট কাঁচের পাত্রে প্রদীপ জ্বেলে রাতের কোন অনুষ্ঠানপর্বে ঘর সাজালে তা দারুণ দেখাবে।

দরজায় আর জানালায় টুংটাং আওয়াজ তুলে দুলুক ঘন্টা। উইন্ড চাইম পছন্দ নয়, তেমন মানুষ নিশ্চয় আপনি নন? আওয়াজটা কিন্তু ভীষণ মিষ্টি শোনায় এর! বারান্দার দরজা, বিভিন্ন ঘরের দরজা আর জানালায় একটু উপরের দিকে ঝুলিয়ে রাখুন অমন কয়েকটি ঘন্টা। কানও জুড়িয়ে যাবে আবার দেখতেও বেশ লাগে এদের। আওয়াজে কখনো খুব অসুবিধা হলে খুলে রেখে দিতে তো ঝামেলা নেই, কিন্তু ঘর সাজানোর জিনিষ হিসেবে এটা দারুণ!

আজকালের এক জনপ্রিয় চল হলো ওয়াল স্টিকার যা দেয়ালের গায়ে সেঁটে দিলে নিমিষেই আপনার ঘরের চেহারা পাল্টে যাবে। কেমন ছবি চান দেয়ালে? ফুলের নকশা, পাখি বা প্রজাপতি, গাছ কিংবা মেঘের দল, সব পাবেন এই স্টিকারের রাজ্যে।পছন্দ করে বেছে নিন কেবল নিজের ঘরের জন্য। আর খুব জলদিই এক নতুন রূপ দেখুন নিজের অন্দরমহলের!

কোন মন্তব্য নেই