কোটিপতির ছেলের কান্ড!

0
.

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি
টাকা অনেক সময় মানুষকে মানবিক করে আবার টাকার গরম সহ্য করতে না পারলে সে টাকা মানুষকে অমানুষেও পরিণত করে। সেরকম অমানুষদের পদতলে পিষ্ট হতে হয় সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষদের। এমনই এক টাকার মালিকের রোষানলে পুড়তে হল নোয়াখালীর বসুরহাটের ফল ব্যবসায়ী মিলনকে।

বসুরহাটের কোটিপতি স্বর্ণ ব্যবসায়ী আপন জুয়েলার্সের মালিক জসিম উদ্দিনের ছেলে মোঃ শাহেদের দেয়া আগুনে পুড়ে ছাঁই হল মিলনের ফল দোকান। পাশাপাশি এ আগুনে পুড়ে গেল মিলনের স্বপ্ন ও ভবিষ্যত।

আজ মঙ্গলবার বেলা ২টায় বসুরহাটে আপন জুয়েলার্সের সামনে থেকে ফল ব্যবসায়ী মিলনকে উচ্ছেদ করার জন্য তার ফল দোকানে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয় শাহেদ। পরবর্তীতে সংবাদ পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় পুলিশ শাহেদকে আটক করে থানায় নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ফল ব্যবসায়ী এ প্রতিবেদককে প্রশ্ন করে বলেন, শাহেদের এ উদ্যতপূর্ন আচরনের বিচার কি হবে? নাকি সেটিও টাকার ভারে পিষ্ট হবে। পুলিশ তাকে কোন বিচার ছাড়া ছেড়ে দিলে এ গরীব মানুষগুলোর প্রতি আরো বেশি অত্যাচার বেড়ে যাবে।

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বলেন, আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে তার দোকানে সামনে রাখা একটি খাচির মধ্যে আগুন দিয়েছে। তবে এ ঘটনায় দুই পক্ষের মাঝে সমঝোতা করে দেওয়া হবে।

কোন মন্তব্য নেই