ডিম চুলের যত্নে

0
.

নারীর সৌন্দর্যের একটা বড় অংশ জুড়ে রয়েছে তার চুল। সেকারণেই ত্বকের সাথে সাথে চুলের যত্ন নেয়াটাও অতি জরুরী। আর চুলের যত্ন নিতে হলে সবসময় গাদা গাদা টাকা খরচ করে পার্লারে ছুটতে হবে এমন কোনো কথা নেই। বরং আমাদের রান্নাঘরে পড়ে থাকা সাধারণ উপকরণগুলোই হতে পারে চুলের পরম বন্ধু। এরকম একটি উপকরণ হচ্ছে ডিম। চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য একটি অবশ্যম্ভাবী উপাদান হচ্ছে প্রোটিন আর ডিম হল এই প্রোটিনের সবচেয়ে ভালো উৎস। নিচে চুলের যত্নে ডিমের কিছু ঘরোয়া প্যাকের রেসিপি দেয়া হল।

ডিমের প্রোটিন প্যাক:

এই প্যাকটি বানাতে আপনার লাগবে ২টা ডিম, ১/২ কাপ অলিভ অয়েল, ১/২ কাপ মধু, ১/২কাপ টকদই, ১/২ কাপ বিয়ার। বিয়ার এর বদলে আপনি ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে পরিমাণ কমিয়ে ২ টেবিল চামচ দিবেন। এই পরিমাণটি লম্বা চুলের জন্য। আপনার চুল ছোট হলে সেই অনুযায়ী উপাদানের অনুপাত কমিয়ে নিবেন। উপকরণগুলো খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। চুল আচঁরে জট ছাড়িয়ে নিন। চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত খুব ভালো করে এই প্যাকটি লাগান। একটি শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে মাথা ঢেকে ৪৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। কন্ডিশনার লাগাতে ভুলবেন না। এই প্যাকটি সপ্তাহে একদিন করে ব্যবহার করুন। ফলাফল দেখে আপনি নিজেই চমকে যাবেন।

ডিম ও হেনা প্যাক:

যারা চুলে হেনা ব্যবহার করেন তারা বাড়তি পুষ্টির জন্য ডিম যোগ করতে পারেন। পরিমাণমত হেনা পাউডার পানিতে ভিজিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। এবার এতে একটা ডিম, এক টেবিল চামচ মধু, দুই টেবিল চামচ নারিকেল তেল মিশান। এই প্যাকটি চুলে লাগিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টা। যদি চুল রঙ করতে চান তবে এক থেকে দেড় ঘণ্টা রাখুন। এবার শ্যাম্পু দিয়ে চুল পরিষ্কার করে ফেলুন। এই প্যাকটি মাসে দুই বার ব্যবহার করাই যথেষ্ট।

ডিম ও আমলা পাউডার প্যাক:

আমলা চুলের জন্য একটি অসাধারণ উপাদান। এটি চুল পড়া বন্ধ করে এবং চুলের আগা ফাটা প্রতিরোধ করে আর ডিম চুলের প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে চুলকে করে সিল্কি, শাইনি ও প্রাণবন্ত। কাজেই এই দুই উপাদান একসঙ্গে ব্যবহার করলে তা যে চুলকে স্বাস্থ্যজ্জ্বল ও মজবুত করে তুলবে সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। একটা ডিম ভালো করে ফেটে নিন। এবার এতে আমলা পাউডার মেশান। কাটাচামচ দিয়ে ভালো করে ফেটুন যাতে করে কোনো দানা দানা না থাকে। এবার মাথা ও চুলে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা রাখুন। তারপর কোনো ভালো শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন এবং কন্ডিশনার লাগান। এই প্যাকটি সপ্তাহে দুইদিন ব্যবহার করতে পারলে ভালো হয়। যদি সম্ভব না হয় অন্তত সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

উপরের তিনটি প্যাকই চুলের জন্য খুবই উপকারী। তবে সব উপকরণ সবার চুলে স্যুট করে না। কাজেই আপনি আপনার চুলের ধরণ বুঝে যেকোনো একটি প্যাক বাছাই করতে পারেন।

কোন মন্তব্য নেই