ফেসবুকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে চান প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হাগিস

0
.

ফেসবুকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে চান ক্রিস হাগিস। বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন, ফেসবুকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার সময় হয়েছে। ফেসবুকে সহ প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হাগিস বলেন, মার্ক জুকারবার্গের সাহস ও শক্তি মাত্রাতিরিক্ত হয়ে উঠছে।

বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে জানা গিয়েছে, ব্যক্তিগত প্রভাব বা সরকারের অন্য যে কোনও দিক থেকে মার্কের প্রভাব অনেকটা হতাশাব্যঞ্জক। তিনি তিনটি মূল যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মকে নিয়ন্ত্রণ করেন- ফেসবুক, ইনস্টগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপ। যেগুলি কোটি কোটি মানুষ প্রতিদিন ব্যবহার করেন। ফেইসবুক বোর্ড একটি অধ্যক্ষের তুলনায় অ্যাডভাইসারির কমিটির মত কাজ করে। কারণ মার্ক প্রায় ৬০ শতাংশ ভোট ভাগ করে নেয়। ফেসবুকের অ্যালগরিদমগুলি কীভাবে তাদের নিউজ ফিডগুলিতে দেখেন তা নির্ধারণ করতে, কী গোপনীয়তা সেটিংস তারা ব্যবহার করতে পারে এবং এমনকি কোন বার্তাগুলি বিতরণ করতে পারে তা নির্ধারণ করতে একমাত্র মার্কই পারেন।

তিনি নিছক আপত্তিকর থেকে হিংসাত্মক এবং উদ্দীপক বক্তব্যকে কিভাবে পৃথক করা যায় তার জন্য নিয়ম নির্ধারণ করেন এবং সেগুলি অর্জন, অবরোধ বা অনুলিপি করে প্রতিযোগীকে বন্ধ করে দিতে পারেন।

“মার্ক একজন ভাল সেই সঙ্গেই দয়ালু ব্যক্তি। কিন্তু আমি ক্রুদ্ধ হয়েছি। কারণ তার বৃদ্ধির উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে তাকে ক্লিকের জন্য নিরাপত্তা ও সাবধানতা বজায় রাখতে সাহায্য করেছিল তা তিনি বজায় রাখেন নি। নিউজ ফিড অ্যালগরিদম কীভাবে আমাদের সংস্কৃতি পরিবর্তন করতে পারে, নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে এবং জাতীয়তাবাদী নেতাদের ক্ষমতায়ন করতে পারে সে সম্পর্কে আরো চিন্তা করার জন্য নিজেকে এবং প্রাথমিক ফেসবুকে টিমের কাজে আমি হতাশ। আমি চিন্তিত মার্ক নিজেকে এমন একটি দলের সাথে ঘিরে রেখেছেন যা তাদের চ্যালেঞ্জ করার পরিবর্তে তার বিশ্বাসকে শক্তিশালী করে।

কোন মন্তব্য নেই