“তাবা রেষ্টুরেন্ট” ও “খুলশী মার্টকে” সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাব

1
.

চট্টগ্রাম মহানগরীর খুলশী থানাধীন অভিজাত তাবা রেষ্টুরেন্ট ও সুপার সপ খুলশী মার্ট এ অভিযান চালিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত।

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মেয়াদ উত্তীর্ণ মাশরুম, মাংস, ডালডা, বেসনসহ বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ এবং কাপড় ধোয়ার সোডা অন্যান্য খাদ্য উপকরণের সাথে সংরক্ষণ করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন-২০০৯ এর ৫১ ও ৫২ ধারা মোতাবেক তাবা রেষ্টুরেন্টকে ২ লক্ষ টাকা এবং খুলশী মার্টকে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জরিমানাসহ মোট ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

.

শুক্রবার বিকালে র‌্যাব-৭ একটি টিম এ অভিযান পরিচালনা করেন।

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি মোঃ মাশকুর রহমান পাঠক ডট নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন,

.

অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ও বিক্রয় রোধকল্পে র‌্যাব প্রতিনিয়ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে মানুষকে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকি থেকে রক্ষা করে ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় কয়েকটি প্রতিষ্ঠান আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষ্যে জনসাধারণকে ঠকানোর উদ্দেশ্যে মেয়াদ উত্তীর্ণ ও অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে এবং বিএসটিআই এর লাইসেন্স ব্যতিরেকে অবৈধভাবে বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করে বিক্রয় করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে আজ ১০ মে বিকেল ৪টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত খুলশীর দুটি প্রতিষ্ঠানে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আদায়কৃত জরিমানার সর্বমোট ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

প্রথম মন্তব্য

  1. জরিমানা করে লাভ কি? আবার ৫ দিন চালালেই সব উটে যাবে।সব টাকা খাওয়ার ফন্দি।ভাইয়েরা পারলে দোকান বন্দ করে দিবা।আরব দেশের মত ভেজাল পেলেই অই দোকানের লাইসেন্সও বাতিল আর কোন প্রকার ২ নাম্ভারি করার সুজোগ থাকবেনা। তা না করে জরিমানা করে টাকা খাওয়ার ফন্দি