পাকিস্তানের নারী সাংবাদিকের জুতায় বাংলাদেশের পতাকা! (ভিডিও)

5
ব্রেকিং নিউজ
  • *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

.

পাকিস্তান-শ্রীলংকা ম্যাচের আগে নিজেদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। সেটি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। কিন্তু কেন? জবাব পেতে হলে ভিডিওটি নিয়ে অল্পবিস্তর বর্নণা করতে হবে।

পুঙ্খানুপুঙ্খ তা দেখে বোঝা যাচ্ছে, পাকিস্তান কোচ মিকি আর্থারের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন দেশটির জনপ্রিয় সাংবাদিক জয়নাব আব্বাস। নীল রংয়ের জিন্সের সঙ্গে কালো জ্যাকেট পরে রয়েছেন তিনি। আর পায়ে শোভা পাচ্ছে সাদা রংয়ের জুতা।

ওই জুতার একপাশে দেখা যাচ্ছে, সবুজের মাঝে লাল রঙের চিহ্ন। যা দেখে মনে হচ্ছে সেটি বাংলাদেশের পতাকা!

এ নিয়ে সরব নেটিজেনরা। অনেকে বলছেন, বাংলাদেশকে হেয় প্রতিপন্ন করতে জুতায় লাল-সবুজ চিহ্ন রেখেছেন জয়নাব।

হাসিব শাহ নামের এক পাকিস্তানের নাগরিক তার এ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে রিটুইটে বলেন, কেন বাংলাদেশের পতাকা জুতায় রাখতে হবে?

তবে কেউ কেউ এ সমালোচনার বিপক্ষে। তাদের যুক্তি, বিখ্যাত ইতালিয়ান ব্র্যান্ড গুচি লোগোর পাশাপাশি জুতায় লাল-সবুজ রং ব্যবহার করে। পাকিস্তানের বিখ্যাত সাংবাদিকের জুতাটি সেই কোম্পানিরও হতে পারে।

তবে জয়নাবের সমালোচকদের যুক্তি, গুচি ব্র্যান্ডের জুতায় তিনটি সোজা দাগ থাকে। দুই পাশে দুটি সবুজ ও মাঝখানেরটি লাল।

তবে জয়নাবের জুতায় দৃষ্টি দিলে বোঝা যায়, মাঝের লাল অংশটুকু বৃত্তের মতো। বাংলাদেশের পতাকাতেও যা রয়েছে। চারদিকটা সবুজ।

বিশ্বকাপ শুরুর দুদিন আগে বাংলাদেশের চার তারকা তামিম, সাকিব, মাহমুদউল্লাহ ও মোস্তাফিজের সঙ্গে ছবি তুলে টুইটারে পোস্ট করেন এক নারী। এ নিয়ে কৌতুহলী ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটপ্রেমীরা। সবাই জানতে উৎসুক ছিলেন, প্রিয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে কে এ সুন্দরী?

সেই তরুণীই পাকিস্তানের বিখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক জয়নাব। পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) উপস্থাপকের ভূমিকায় দেখা গেছে তাকে। কাজ করেন টেন স্পোর্টস ও সনি ইএসপিএনে। এছাড়া পাকিস্তানের শীর্ষ পত্রিকা ‘দ্য ডন’-এ নিয়মিত কলাম লেখেন তিনি। দেশটির স্বনামধন্য গণমাধ্যম দুনিয়া নিউজের সঙ্গেও যুক্ত আছেন এ ললনা।

এর আগেও পাকিস্তানের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান বাবর আজমের সেঞ্চুরির পর তাকে মিকি আর্থারের সন্তান বলে বিতর্কিত মন্তব্য করে নিজের দেশেই ব্যাপক সমালোচনার শিকার হন।