লোকাল বাস থেকে লিফট

0
.

সকাল থেকে রাত সব সময়ই ভিড় আর ব্যস্ততা। সবাই যেন ছুঁটছে সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে। আর এই দৌঁড়ে আমরা গন্তব্যে পৌঁছাতে সওয়ার হই বাস, ট্রেন বা সব শেষ অফিসে বা বাসায় ওঠা-নামার লিফট। যেভাবেই যেখানে যাই না কেন ওঠা বা নামার সময় চলে অঘোষিত এক যুদ্ধ।

লিফট ব্যবহারের সময় যে বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখতে হবে:

যখন লিফটের বাইরে
• হয়ত আপনি আসতে আসতে দেখলেন লিফটের দরজা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, দৌঁড়ে এসে লিফটের গেট খোলার জন্য শরীরের কোনো অংশ দেবেন না

• এতে করে লিফটের সেন্সর কাজ না করলে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে

• গেট থেকে একটু দূরে দাঁড়াতে হবে, যেন যারা নামবে তাদের সমস্যা না হয়

• লিফটে ওঠার জন্য সবাই লাইনে দাঁড়ানো থাকলে, সেই সিরিয়াল ভেঙে সামনে যাবেন না
• সবার পেছনে দাঁড়ান

• ওভারলোড দেখালে অতিরিক্ত হিসেবে লিফটে না ওঠা

• অপেক্ষা করার সময় দেরি হলেও বিরক্তি প্রকাশ না করে শান্ত থাকা।

লিফটে
• লিফটে ওঠার সময় বয়স্ক, রোগী, শিশু ও নারীদের আগে সুযোগ দেয়া

• তাড়াহুড়ো না করে ধীরে ধীরে ওঠা

• কাউকে আসতে দেখলে দরজা খোলার বাটন চাপা

• পরিচিত কারো সঙ্গে দেখা হলে হাসি বিনিময় করা

• আস্তে আস্তে কথা বলা, উচ্চস্বরে কথা না বলা

• নামার সময়ও আগে অন্যদের নামতে দিন

• হঠাৎ করে লিফট বন্ধ হয়ে যেতে পারে

• আতঙ্কিত না হয়ে জরুরি বাটনে চাপ দেয়া

• লিফটের ‍আয়নায় নিজেকে এমনভাবে দেখা যাবে না, যাতে করে সবার মনযোগ আপনার দিকে চলে আসে।

দুই তিন তলায় ওঠা নামার জন্য লিফটের পরিবর্তে সিঁড়ি ব্যবহার করুন। শুধু লিফট নয়, যেখানে অন্যদের সঙ্গে কোনো কিছু ভাগ করে নিতে হয়, সেখানে আগে অন্যদের সুযোগ দিন। এই ছাড় দেয়ার মানসিকতা আমাদের এগিয়ে নেবে অনেক দূর। আর এটা শুরু হোক নিজের ঘর থেকেই।

কোন মন্তব্য নেই