বিমানবন্দর সড়কের জলজটের কারণ
পতেঙ্গায় রুবি সিমেন্টে দেয়াল গুড়িয়ে দিয়েছে সেনাবাহিনী

3
ব্রেকিং নিউজ
  • *প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন

                    *প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন

.

নগরীর পতেঙ্গা বিমানবন্দর সড়কের সিমেন্ট ক্রসিং এলাকায় নালার জায়গা দখল করে নির্মিত রুবি সিমেন্টের অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ)।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে সেনাবাহিনীর সহায়তায় সিডিএর স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল আলম চৌধুরী এ অভিযান পরিচালনা করেন।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, বৃষ্টি হলেই তলিয়ে যায় বিমানবন্দর সড়ক। পানির ঢল ভেঙে চলাচল করতে হয় পথচারী ও যানবাহনকে। আগে রুবি সিমেন্ট কারখানা দিয়ে পানি চলাচলের পথ ছিল। কিন্তু রুবি সিমেন্ট কর্তৃপক্ষ চসিকের এই রাস্তার জায়গা তাদের সীমানার মধ্যে ঢুকিয়ে নেয়। এতে রাস্তার পানি চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়।

.

ফলে বৃষ্টি হলে সিমেন্ট ক্রসিং থেকে রুবি সিমেন্ট কারখানা গেইট পর্যন্ত অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয় পথচারীদের। পানি চলাচল স্বাভাবিক করতে রাস্তার এই জায়গা ছেড়ে দেওয়ার জন্য রুবি সিমেন্ট কর্তৃপক্ষকে বারবার তাগাদা দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে তারা কোনো কর্ণপাতই করেনি।

অভিযানকালে জলাবদ্ধতা নিরসনে বাস্তবায়নাধীন মেগা প্রকল্পের পরিচালক ও সিডিএর নির্বাহী প্রকৌশলী আহমেদ মাঈনুদ্দীন, দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন উপস্থিত ছিলেন।

আহমেদ মাঈনুদ্দীন বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহায়তায় সিডিএর ভ্রাম্যমাণ আদালত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে। নালাটি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে বুঝিয়ে দেওয়া হযেছে। দ্রুত নতুনভাবে নালা তৈরি করে পানি চলাচল নিশ্চিত করা হবে।

.

দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন বলেন নালা ভরাট হয়ে যাওয়ায় রুবি সিমেন্ট কারখানার ভেতরের খালটিতে এলাকার পানি নামার পথ বন্ধ হয়ে যায়। এজন্য বিমানবন্দর ও পতেঙ্গামূখী সড়কে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। তবে ইতোমধ্যে নালার ওপর গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পাশাপাশি পানি চলাচল নিশ্চিত করা হয়েছে। দ্রুত নালাটি নতুনভাবে তৈরি করা হবে।

অভিযানে সিটি কর্পোরেশন, সিডিসি-এর কর্মকর্তা-কর্মচারী, থানা পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেটকে সহায়তা করেন।

প্রসঙ্গত, জলাবদ্ধতার কারণে গত সোমবার থেকে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরমুখী সড়কে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। ৪ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরেও বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) পর্যন্ত যানজট অব্যাহত রয়েছে। যানজট কাস্টমস,ইপিজেড সিমেন্ট ক্রসিন নারিকেল তলা কাটগড় এয়ারপোর্টে পর্যন্ত দীর্ঘায়িত হয়েছে। এতে করে হজ্জ যাএীদের ঘন্টা পর ঘন্টা জ্যামে আটকে থাকতে হয়েছে এতে অনেক হজ্জ যাএীদের ফ্লাইট মিস করার খবর পাওয়া গেছে এছাড়াও জলাবদ্ধতার কারণে বিমানবন্দর সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হচ্ছে

3 মন্তব্য