বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক পথে অবিচল থাকলে পথ হারাবে না বাংলাদেশ- নওফেল

1
ব্রেকিং নিউজ
  •  

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

.

শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, নীতি নৈতিকতা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক পথে অবিচল থাকলে পথ হারাবে না বাংলাদেশ। তার কারন তিনি ছিলেন একজন অসাম্প্রদায়িক ও মানবিক গুনাবলী সম্পন্ন মানুষ। তার সেই গুনাবলী দিয়ে তিনি বাংলার সকল মানুষের মন জয় করেছিলেন।

তিনি আজ শনিবার (৩১ আগষ্ট) সকাল ১১ টায় নগরীর আগ্রাবাদ সোনালী ব্যাংক ভবনে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও সোনালী ব্যাংক এমপ্লয়ীজ ইউনিয়ন বি-২ বৃহত্তর চট্টগ্রাম অঞ্চল কর্তৃক আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধার অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

নওফেল বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ছিলেন এ দেশের প্রতিটি মানুষের অতি আপনজন। জাতি-ধর্ম-বর্ণ-শ্রেণী-সম্প্রদায় নির্বিশেষে প্রত্যেক বাঙ্গালী জন্যই ছিল তাঁর অকৃত্রিম দরদ। তিনি তাঁর ২৪ বছরে রাজনৈতিক জীবনে প্রায় ১৪ বছর কারাভোগ করেছেন শুধুমাত্র বাংলার শোষিত বঞ্চিত মানুষগুলোর মুখে হাসি ফোটানোর জন্য। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা বিশ্ব নেত্রী দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পথে জাতি এগিয়ে যাচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও সোনালী ব্যাংক এমপ্লয়ীজ ইউনিয়ন বি-২ বৃহত্তর চট্টগ্রাম অঞ্চল সভাপতি মং হলা চিং এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মোঃ সৈয়দুল আলম ও মহিলা সম্পাদক আরিফা আফরিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোক সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম।

উপমন্ত্রী সওফেল আরো বলেন, আওয়ামীর সরকার মোট দেশ শাসন করেছে ১৯ বছর, বাকিটা ছিল লুট আর দূর্ণীতিতে ছিল ভরা, অথচ শেখ হাসিনার শাসনামলে চলছে উন্নয়নের স্বর্নযুগ, দেশের মানুষকি কখনও ভেবেছে সাগরের তলদশে টানেল হবে ? সাবমেরিন হবে ? বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট হবে ? কখনও মানুষ কল্পনা করেছিল দেশের প্রতিটি মানুষের হাতে মোবাইল হবে ? বঙ্গবন্ধুর নের্তৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে বলেই জননেত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বের কারণেই আজ এতসব সম্ভব হয়েছে। গরিব দেশ থেকে আজ মধ্যম আয়ের দেশ হয়েছে। বিশ্বে বাংলাদেশ আজ রোল মডেল হিসেবে পরিচিত।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সোনালী ব্যাংক লিমিটেড চট্টগ্রাম অঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ মঈনুদ্দীন, শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব শরফ আলী, সোনালী ব্যাংক এমপ্লয়ীজ ইউনিয়ন বি-২০২ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মোঃ কামাল উদ্দিন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস.এম লুৎফর রহমান, শ্রমিক লীগ চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি মোঃ বখতিয়ার উদ্দীন খান, সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহবুবুল হক চৌধুরী, সোনালী ব্যাংক চট্টগ্রাম-দক্ষিনের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মোঃ আমিনুর রসুল, বঙ্গবন্ধু পরিষদ বৃহত্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলের নেতা এ, এস, এম এয়াকুব, মোঃ গিয়াস উদ্দিন, এ বি এম খালেদুজ্জামান, আরমান মাহমুদ, মোবারক শাহ চৌধুরী, আবদুল মোমেন জসীম প্রমুখ।