হিন্দুদের পশ্চিমবঙ্গ থেকে বিতাড়িত করা হবে না: অমিত শাহ

1
.

লোকসভা নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের পর প্রথমবার পশ্চিমবঙ্গে এসেছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এসেই তিনি জানিয়েছেন, ভারতের নাগরিক তালিকা বা এনআরসি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেসব ‘রটাচ্ছেন’ তা ভুল। এখানে অন্যান্য দেশ থেকে আসা হিন্দু, শিখ, জৈন শরণার্থীদের বিতাড়িত করা হবে না। নাগরিক তালিকায় তাদের নাম না থাকলেও। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের।

মঙ্গলবার (০১ অক্টোবর) কলকাতার এক জনসমাবেশে বক্তৃতায় এসব কথা জানান এই বিজেপি নেতা। এক্ষেত্রে ভারতের নতুন নাগরিকত্ব আইন তৃণমূল কংগ্রেসের কারণে পাস করানো যায়নি বলেও অভিযোগ করেন অমিত শাহ।

অমিত শাহ বলেন, বিজেপি একজন অমুসলিমকেও দেশ ছাড়তে জোর করবে না।

‘মমতা বলছেন পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হলে যেসব লাখ লাখ হিন্দু শরণার্থী (বাংলাদেশ থেকে) এসেছেন তাদের ফেরত পাঠানো হবে। এরচেয়ে বড় মিথ্যা হয় না। এবং এটাই এখানে বলতে এসেছি এটা কখনো হবে না,’ বলেন তিনি।
বিজ্ঞাপন

অবৈধ বাংলাদেশিদের শনাক্ত করতে উত্তর প্রদেশে হবে অভিযান

পশ্চিমবঙ্গে এনআরসির আগে শরণার্থীদের সুরক্ষা দিতে সংসদে বিল পাস করা হবে জানিয়ে অমিত শাহ আরও বলেন, তারা অন্যান্য ভারতীয়র মতোই সমান নাগরিক সুবিধা পাবেন।

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একজন শরণার্থীও দেশ থেকে বিতাড়িত হবে না। তেমনি একজন অনুপ্রবেশকারীও এখানে থাকতে পারবে না। তাদের ছুড়ে ফেলা হবে।

অনুপ্রবেশকারীদের মমতা আশ্রয় দিতে চাইছেন বলেও অভিযোগ ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর।

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক ছাড়াও অমিত শাহ আরও কিছু কর্মসূচি পালন করবেন। দুর্গাপূজা প্যান্ডেলের উদ্বোধন, এনআরসি নিয়ে জনসচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে থাকবেন তিনি। অমিত শাহর ধারণা আগামী নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে সরকার গঠন করতে পারবে বিজেপি। পশ্চিমবঙ্গে লোকসভার ৪২ আসনে এবার বিজেপি জিতেছে ১৮ টি।