শিক্ষাদানে শিশুকে শাররীক নির্যাতন: ইতালিতে বাংলাদেশি ইমামকে আটক

0
.

ইতালিতে ইসলামি শিক্ষা দেওয়ার সময়ে শিশু নির্যাতনের অভিযোগে বাংলাদেশি এক ইমামকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। ইমামের বয়স ২৩ বছর জানালেও তার নাম প্রকাশ করেনি দেশটির পুলিশ।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার ইতালির ভেনিসের কাছে পাদোভা অঞ্চলের ‘বাংলাদেশ কালচারাল সেন্টার’ অভিযুক্ত ইমামকে আটক করে পুলিশ। ইতালির পত্রিকাগুলো এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

পত্রিকাগুলো জানায়, বাংলাদেশ কালচারাল সেন্টারে পাঁচ থেকে দশ বছর বয়সের বাঙালি শিশুরা ইসলামিক শিক্ষা নিতে আসে। কিন্তু এসব বাচ্চারা কোরআনের উচ্চারণ ভুল করলে অভিযুক্ত ইমাম তাদের শারীরিকভাবে আহত করতেন। কাউকে ঘুষি, কাউকে লাঠি দিয়ে পেটাতেন। যা ইতালির আইনানুযায়ী মারাত্মক অপরাধ। বেশ-কয়েকদিন এভাবে চলার পর কোনও পরিবর্তন দেখতে না পেয়ে অন্যান্য শিক্ষকরা স্থানীয় পুলিশের কাছে ইমামের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

পরে পুলিশ এসে ঘটনার সত্যতা পেয়ে সাথে সাথেই তেইশ বছর বয়সী ওই ইমামকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আব্দুস সোবাহান সিকদার বলেন, “বিষয়টি বর্তমানে ইতালিয়ান আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। এমতাবস্থায় আমাদের এখান থেকে কিছু করার নেই। যেহেতু পুলিশের হাতে প্রমাণ আছে সেহেতু স্থানীয় আইনানুযায়ী ইমামের শাস্তি হবে। আর এসব ছোটছোট বাচ্চাদের গায়ে হাত তোলা বাংলাদেশেও জঘন্যতম অপরাধ।”

কোন মন্তব্য নেই