চট্টগ্রামে পুলিশের কমিউনিটি ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন

0
.

চট্টগ্রামে বাংলাদেশ পুলিশ কল্যান ট্রাস্টের কমিউনিটি ব্যাংকের ব্রাঞ্চ উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বন্দর নগরী বাণিজ্যিক এলাকা আগ্রাবাদের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে ডিজিটাল ফলক উন্মোচন ও ফিতা কাটার মধ্য দিয়ে ব্যাংকের শাখাটি উদ্বোধন করেন পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. জাবেদ পাটোয়ারী।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাহবুবুর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম চেম্বার অফ কমার্স এর সভাপতি মাহবুবুল আলম, বিজিএমইএ সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম, বিএসআরএম চেয়ারম্যান আলী হাসান আকবর আলী,বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক এ কে এম আজাদ, বাংলাদেশ পুলিশ চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল খন্দকার গোলাম ফারুক, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি এম এ লতিফ এমপি।

.

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. জাবেদ পাটোয়ারী তার বলেন, ‍“দেশের ব্যবসা বানিজ্যের কেন্দ্র এই চট্টগ্রামে কমিউনিটি ব্যাংক অত্র অঞ্চলের ব্যবসায়িক লেনদেনকে আরো সহজ করতে কাঙ্খিত গ্রাহক বান্ধব বিভিন্ন সেবা নিয়ে হাজির হয়েছে। চট্টগ্রামের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় কমিউনিটি ব্যাংক তার পরিসেবা প্রদানের মাধ্যমে বন্দরনগরীর ক্রমবর্ধমান উন্নয়নের অংশীদার হয়ে উঠবে।” আমরা আপনাদের আস্থা ও বিশ্বাসের জায়গাটি দখল করতে চাই।”

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলম তার বক্তব্যে বলেন,”কমিউনিটি ব্যাংক খুব অল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে অনেক বড় ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হবে, আমি ব্যক্তিগতভাবে কমিউনিটি ব্যাংকের সফলতা ও সহযোগিতা কামনা করি ।” পাঁচ কোটি টাকার চেক দিয়ে কমিউনিটি ব্যাংকের সাথে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের ব্যবসায়িক যাত্রা শুরু করেছেন বলেও জানান তিনি।

পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক তার বক্তব্যে বলেন,” আমরা বাংলাদেশ পুলিশের সকল সদস্যগণ যেমনটা জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেয়, ঠিক তেমনই জনগণের অর্থনীতির ও নিরাপত্তা দেব এবং এতে কোনো অনিয়ম হবে না।”

উল্লেখ্য বাংলাদেশ পুলিশ কল্যান ট্রাস্টের মালিকানাধীন এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ কল্যাণে ভূমিকা রাখা এবং এই ব্যাংকে হিসাব খুলতে আগ্রহী সর্বসাধারণের আর্থিক নিরাপত্তা পুলিশ তদারকির মাধ্যমে নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে। পুলিশ সুত্র জানায়, বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল থেকে শুরু করে কনস্টেবল পর্যন্ত ২ লক্ষ ১০ হাজার পুলিশ সদস্য ব্যাংকটির মালিকানার অংশীদার। সকল পুলিশ সদস্যের যৌথ সহযোগিতায় ও সমান বিনিয়োগে এই এই কমিউনিটি ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ পুলিশ।

কোন মন্তব্য নেই