চট্টগ্রামে “মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ” নানজীবা তোরসা’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

0
.

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৯’ নির্বাচিত চট্টগ্রামের মেয়ে রাফাহ্ নানজীবা তোরসা’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে চট্টগ্রামে। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে ওয়েডিং কালারস বাংলাদেশ এর আয়োজনে এ সংবর্ধনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির সি.ই.ও নিলেশ রনি, সিনিয়র কি ফটোগ্রাফার সাজিদুর রহমান, নাজিম উদ্দিন রিফাত, আদনান ইসলাম আনফাল, শেখ মুনতাসির খলিল, আরমান চৌধুরী, রাহুল, তানভিরুল ইসলাম প্রমুখ। পরিবারের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন রাফাহ্‌ নানজীবা তোরসা’র মা শারমিন আক্তার, ভাই শেখ তাহমিদ মোরশেদ এবং লিও ক্লাবের সদস্যবৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন অমিত বড়ুয়া।

.

শুভেচ্ছা বক্তব্য শেষে কেক কেটে তাকে ফুলেল সংবর্ধনা দেয়া হয়। শেষ পর্যায়ে ছিল গানের আসরের আয়োজন।

উল্লেখ্য- গত ১১ অক্টোবর’১৯ আয়োজিত ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’র গ্র্যান্ড ফিনালেতে দেশের সেরা প্রতিভাবান সুন্দরীদের পেছনে ফেলে সেরাদের সেরার মুকুট অর্জন করেন রাফাহ্ নানজীবা তোরসা। এরপর ১৪ ডিসেম্বর’১৯ লন্ডনের এক্সেল এরিনাতে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ গ্র্যান্ড ফিনালের জমকালো আয়োজনে ‘হেড টু হেড’ রাউন্ডে প্রথম স্থান অর্জন করেন তোরসা।

.

লন্ডনে অবস্থানকালীন তিনি সেখানে নিযুক্ত বাংলাদেশের মাননীয় হাই কমিশনার মিস সাইদা তাসনীম মুনা, কমনওয়েলথের সেক্রেটারি জেনারেল মিস পেট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড এবং হাউস অব লর্ডসের আপার পার্লামেন্টের উচ্চপদস্থ রাজনীতিবিদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এছাড়াও তিনি লন্ডনের বিখ্যাত অপেরা হাউস পরিদর্শন করেন।

প্রসঙ্গত  রাফাহ্ নানজীবা তোরসা ২০০৯ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় শিশু কিশোর প্রতিযোগিতা’র লোকনৃত্য ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার গ্রহণ করেছেন। এরপর ২০১০ সালে মাননীয় স্পীকার শীরিন শারমিন কাছ থেকে ভরতনাট্যমে স্বর্ণপদক অর্জন করেন এবং সেই সাথে রিয়েলিটি শো ‘মার্কস অলরাউন্ডার’-এ নিম্ন মাধ্যমিক গ্রুপে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছেন।

এর পাশাপাশি তিনি ছোটবেলা থেকেই বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত থেকে তার প্রতিভার স্বাক্ষর দিয়ে এসছেন। তিনি স্বনামধন্য লিও ক্লাব চিটাগাং ডায়নামিক সিটি’র সাথে ১১ বছর বয়স থেকেই সম্পৃক্ত আছেন এবং এখন পর্যন্ত ১৩টি প্রজেক্টে সফলতার সাথে কাজ করেছেন। তার কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ তিনি ক্লাবটির ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

কোন মন্তব্য নেই